Take a fresh look at your lifestyle.

আমার পথচলার অবশেষে

187

 

একদিন থাকবো না আমি
থাকবে না আমার জন্য আর কেউ পথ চেয়ে,
আমার সহধর্মিণী সেই দিন আর
চায়ের কাপটা হাতে নিয়ে ধীরে ধীরে এগিয়ে
আসবে না আমার বারান্দার কোণার দিকে থাকা
টেবিলের কাছে;কারণ আমার নড়াচড়া যে নেই!

সেই দিন সবকিছুই থাকবে
পরে থাকবে আমার অসম্পূর্ণ পরিত্যাক্ত
ডায়েরিটা টেবিলটার উপর,
আমার স্বাদের কলমটাও পরে থাকবে
এলোমেলো।
শুধু জীবনের তাগিদে করা আমার
কিছু কাজের প্রতিচিন্তাগুলো হয়তো রয়ে যাবে
আমার পরিবার পরিজনের কাছে
সেখানটাতেও আমার অবদানের ছিটেফোঁটাও
থাকবে না;কারণ আমার নড়াচড়া যে নেই!

থাকবে না সেদিন আমার জন্য কেউ
আর কেউ মেসেঞ্জারে নক দেবে না,
লাভ রিয়েক্ট দেবে না ভার্চুয়াল বন্ধুরাও
ঝর তুলবে না, ভাইরাল হবেও না আমার অগোছালো
কিছু করা ফেইসবুক পোস্টের।
নীল বাতিটাও আর জ্বলে জ্বলজ্বল করবে না;
কিন্তু পরে থাকবে কিছু আনাড়ি অসার লেখা।
হয়তো এই গুলো পড়ে কেউ হাসবে
বন্ধু/বান্ধবীর কারো চোখের কোণে একফোঁটা
জল ঝরতেও পারে,তবুও আমি থাকবো না;
কারণ আমার নড়াচড়া যে নেই!

আমি সেদিন আসবো না আর
তুমি মনের দ্বন্দ্বে যেদিন কাঁদবে,খুঁজবে আমায়
খুঁজতে তোমাকে হবেই!আমাকেই খুঁজবে তুমি
আমার লেখা প্রতিটা লেখা খুব মনোযোগে
পড়বে তুমি বারবার।
হয়তো আমি দেখবো সেদিন ঐ দূর হতে!
পৃথিবীর অপার হতে জানবো
কেউ একজন আমাকে আজ খুজে,
কেউ একজন আমার ভালবাসার মূল্য আজ বুঝে;
কিন্তু মন আসতে চাইলেও আমি সেদিন
আসতে পারবো না;কারণ আমার নড়াচড়া যে নেই।

আজ হয়তো ভুলটাই তুমি বড় দেখেছো
কিন্তু আমার ভেতরের মানুষটাকে
জানতে চাও নি তুমি,বুঝতেও চাও না।
জীবনের অসাড়তা তোমাকে ঘিরে রেখে দিয়েছে,
চাকচিক্যময় লাস্যময় অনূভুতি তোমাতে
পর করে রেখেছে আমার এই মাটির ভালবাসা।
আমি ক্লান্ত বড়ই পরিশ্রান্ত হয়ে পরছি,
তোমাকে খোঁজার তোমাকে বুঝার সকল প্রচেষ্টা
আজ ব্যর্থ,আমি অসহায়ের মত,
যদি একটিবার ফিরে আসতে!
তবুও বলবো আবার এসো ফিরে সেই দিন
আসার পূর্বে যেদিন আমার শেষদিন!
যেদিন আমি থাকবো না অবশ্যই সেদিন আসবে,
তবে আমি থাকবো না;কারণ আমার নড়াচড়া যে নেই।

মোতালিব হোসেন _কবি ও লেখক

Leave A Reply

Your email address will not be published.