Take a fresh look at your lifestyle.

উড়ো চিঠি

139

 

লোকে বলে মেয়েটা বড্ড উড়নচন্ডি,ভবঘুরে,
চিন্তায় মগ্ন হয়ে ভাবি ঘুরে ঘুরে,
চেয়েছিতো খুব কম তাও কেন এত দুরে?
কি করে চাইলে পাব? একটু সুরে নাকি বেসুরে?
.
মেয়েটা নাকি একদম বেখেয়ালি!
ভাবি, দেখতে দেখতে চাঁদের আদোফালি
পড়লে পড়ুক কবিতা চুয়ে কালি!
ভাবুক লোকে, কত আর ভাববে আমায় খামখেয়ালি?

যা চাই,চেয়েও পায়নি তা শত মুনি, ঋষি,
করুক না শুনে নব্য কবিরা হাসাহাসি,
চর্চিত হতে যে আমি খুব কম ভালোবাসি।
এনে দিক খুঁজে
হবো আমি তার সাত জনমের দাসি।

পেয়েছিলাম এক কিশোরের দেখা,
দাবি করতো সে নিজেকে বীরপুরুষ।
এসব আমার জীবন থেকে শেখা,
দাবিদারেরা হয় না মোটেও চৌকস।

দিলো ছুঁড়ে সে তার প্রশ্নের ঝুড়ি,
কি এমন পেতে আমার এত হুড়োহুড়ি?
আমি শুধু চেয়ে দেখি তারে, আর মাথা নাড়ি।
আমার চাওয়াগুলো যেন নিজেই পুরন করতে পারি,
চিনতে গিয়ে সেসব, আমি জিতি কিংবা হারি;
ধরা দেবেই তারা বাঁচা যে খুব দরকারি।

 

 

তামিমা – কবি ও মডারেটর চেতনায় সাহিত্য।

Leave A Reply

Your email address will not be published.