Take a fresh look at your lifestyle.

কুহেলি যুদ্ধ থামাও

200

 

কুহেলি, সারাবেলা ঘুরে বেড়াবার
দিন ফুরালো
ফড়িং আর প্রজাপতির পেছনে ছুটার
দিন যে এখন শেষ!
সময় এখন যুদ্ধ থামাবার।
এ যুদ্ধ না থামালে
থাকবেনা আর এই পৃথিবীর কোনো কিছু;
ঘাস, ফুল, বৃক্ষের পত্রপল্লব মর্মর
সবকিছু ধুলায় ধুসর হয়ে যাবে।
তুমি খোঁপায় গেঁথেছো হলুদ ফুল
তুমি এক অপরূপা।
তুমি যদি যুদ্ধবাজের চোখের রেটিনায়
বিঁধিয়ে দিতে পারো তোমার
ভালবাসাময় চাউনির তীর্যক ফোকাস
থমকে যাবে ট্যাংক বহরের যাত্রা।
প্রতিটি মিসাইল রজনীগন্ধায় রূপ নিবে
প্রতিটি যুদ্ধবিমান নিঃসীম নিলিমায়
বাজাবে প্রেমের সংগীত,
প্রতিটি গুলী হয়ে যাবে
সৌরভময় গোলাপের পাঁপড়ি।
তোমার নীল চোখের মায়াবী দৃষ্টি
যদি একবার ছড়িয়ে দাও
যুদ্ধময় মৃত্তিকার শয্যায়
ফুটে উঠবে লক্ষ হাজার
টিউলিপ, ডালিয়া, কসমস, চেরি ফুল
সুশোভিত হয়ে যাবে সকল বাগান।
তোমার চোখের মোলায়েম পাঁপড়ি থেকে
ঝরতে থাকবে অজস্র শিউলি কামিনী হাস্নাহেনা।
তোমার মনোলোভা চুলের সৌরভ
ছড়িয়ে যাবে বাতাসের ঘ্রাণ হয়ে,
সাগরের ঢেউ এসে ছলাৎ ছলাৎ
নিভিয়ে দিয়ে যাবে
লক্ষ কোটি টন বারুদের দহন।
যদি তোমার মায়াবী আঁচল ছড়িয়ে দাও
আকাশের সীমাহীন নীলাভ চাদরে
বিশ্ব জুড়ে কেবলই ঝরতে থাকবে
পুষ্পবৃষ্টি, সুগন্ধি শিশির,
ইথারে ভাসবে তোমার মিহি সংগীত।
প্লিজ কুহেলি,
তুমি এই মৃত্যুময় যুদ্ধ থামিয়ে দাও এখুনি।

মোঃ হুমায়ুন কবির – কবি ও সাহিত্যিক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.