Take a fresh look at your lifestyle.

চির তৃষ্ণা

414

 

আজ পহেলা ফেব্রুয়ারী দুহাজার বাইশ,
সময় সন্ধ্যা প্রায় ।।
বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে, একুশে বইমেলার এলোমেলো স্টলগুলো একা একাই ঘুরেফিরে দেখছিলাম, আর পছন্দের বইগুলো লুফে নিচ্ছিলাম ।।
অনেকদিন পর আজ, হঠাৎ করেই বইমেলায় সুনয়নার সঙ্গে দেখা !!
সুনয়না আমার বন্ধু, আমার প্রিয়তম বন্ধু !!
আজ এসেছে বইমেলায় !!

আগেও তার সাথে__
তার, গোলাপি শরীরে গোলাপি শাড়ি,
গোলাপি চুড়ি,
গোলাপি টিপ,
গোলাপি ঠোঁটে রূপালি হাসিতে,
নীল পাঞ্জাবি,
কালো পায়জামায় এই বইমেলা প্রাঙ্গণ মুখরিত
করেছি অনেকবার ।।

আজ সদ্য গোসল করা সুনয়না চলেছে তার ধূসর অঙ্গে__
নীল শাড়ির উপরে নীল কাশ্মীরী শাল,
গলায় পরেছে নীলমণি হার,
নীল চুড়ি,
নীল টিপে,
হলুদ পাঞ্জাবি,
সাদা পায়জামা পড়া এক সুদর্শন যুবকের হাত ধরে !!

সুনয়নার সাথে অল্প কিছুদিনের দূরত্ব আমার,
আজ তাকে প্রথম দর্শনেই__
যেন হাজার বছর,
হাজার যুগের না দেখার তৃষ্ণায়,
পাথর হয়ে দাঁড়িয়ে রইলাম কিছুক্ষণ !!

সুনয়নার এমন পোশাক-বৈচিত্রের পরিবর্তন কেন জানিনা,
পাশদিয়ে চলে যেতে পিছনে ফিরে চাইলো সুনয়না৷!! দেখলাম, তার, জলে ভাসা দুটি পদ্মলোচনে যেন চিরকালের অমাবস্যার ছাপ,
সুডোল বক্ষযুগল যেন জাপানের হিরোশিমার হাহাকার,, পারমানবিক বোমার আঘাতে বিধ্বস্ত,
গোলাপি গালে গড়িয়ে পড়ছে কাজল ধোওয়া আঁখিজল !!

যেতেযেতে, ফেকাসে ঠোঁট নেড়ে নিঃশব্দে সুনয়না বললো__
ভালো আছি,
ভালো থেকো,
তুমি আমাকে খুঁজে পাবে নাকো এ মর্ত্যলোকে,
আমাকে খুঁজে নিও কোন এক জ্যোৎস্না ভরা রাতে,
দুখী তারাটির মাঝে আমার প্রিয় নয়,
অতি প্রিয়তম নীল দেবতা !!

যেমন করে মিলিয়ে যায় দিনের আলো রাতের অন্ধকারের গভীরে,
ঠিক তেমন করে পলকেই মিলিয়ে গেলো সুনয়না,
মনের অজান্তে চলে আসা নয়নজলের ঝাপসায়,
সন্ধ্যার আবছায়া অন্ধকারে !!
চোখ মুছে আর, দেখলাম না তাকে !!
দিকভ্রষ্ট পথিকের মতোই সুনয়নার সুনয়ন,
দেখার তৃষ্ণা রয়ে গেলো চিরকালের !!

 

নীল- কবি ও সাহিত্যিক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.