Take a fresh look at your lifestyle.

জীবনের গল্প

417

 

বিরহ মিলনে গাঁথা জীবনের গান একদিন থেমে যাবে
চিরসত্য মেনে এই সুন্দর পৃথিবীর মায়া ছেড়ে অজানা দেশে পাড়ি দেব সবে!
সকালে সোনারোদে ঝলমলিয়ে উঠে সূর্য হাসে
বিকেলে ম্লান মুখে অস্ত যায়।

চিরন্তন এ রীতি শৈশবের দিনগুলি ধীরে ধীরে হারায় জীবনে নামে সায়াহ্ন।
যেখানে আলো সেখানে আঁধার পিছনে ছুটে চলে;
না মিটিতে পিপাসা কত জীবন অকালে ঝরে যায়;
কত তৃষা বুকে না পাওয়া ব্যথা লুকিয়ে থাকে অজানায়।

তবুও যে কদিন থাকি বেঁচে থাকতে চাই হাসিমুখে;
তোমাদের মাঝে পেতে চাই ঠাঁই!
নতুন নতুন আশার মুকুল ফোঁটাই।
প্রাণের মেলায় সাজিয়ে ডালা মানুষের সুখে দুঃখে নিজেকে দেব বিলিয়ে ;

তোমরা নিও ভালোবাসার ফুল হাসিমুখে;
শুকালে সে ফুল ছুড়ে ফেলোনা সুরভী তার রেখো বুকের তলে।

সুনীল আকাশে সাদা মেঘের ভেলা ভাসে থরে থরে
শ্রান্ত হয় প্রখর রবির তেজে!
কী জানি কখন চলে যাবো পৃথিবীর মায়া ছেড়ে!
ধূলিতে লুটাবে দেহখানি হাসির রেখা হবে মলিন।

বসন্তের দিন চলে যাবে আসবে বিরহের দিন;
সুদূরে বাজে বাঁশি শুনি ঝরা পাতার কান্না।
সুখ দুঃখের দোলায় দুলে স্মরণের চিহ্ন যতো মুছে দিয়ে ঝরে যাবে জীবনের শেষ পাতা।
অনন্ত আঁধারে মিলাবে জীবন তরী!!

 

সোনালী বসু-

কবি ও সাহিত্যিক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.