Take a fresh look at your lifestyle.

নজরবন্দী

270

 

‘গুড় বাতাসা’ ‘নকুল দানা’ ‘পাঁচন’ ‘বোমা মারো’,
‘চড়াম’ ‘চড়াম’ ‘খেলা হবে’ আছে কতো আরো!

মগজে তার ঠাসা আছে কতো রকম ফন্দি,
ভোটের আগে কমিশনের তাই ত নজরবন্দি!

গণ্ডা গণ্ডা ‘জওয়ান’ দিয়ে ঘিরে রেখে বাড়ি,
জেলাশাসক রাত্রি জেগেই করেন নজরদারি!

রাত পোহালে ‘গণতন্ত্রের’ উৎসবের শেষ পর্ব,
আপন মূর্তি ধরলো ‘গুণী’ উল্টে দিয়ে সর্ব!

সাহেব পথে দাঁড়িয়ে রন বন্দুকধারী নিয়ে,
কেষ্ট পগার পার হয়ে যায় চোখে ধুলো দিয়ে!

‘কেষ্ট হাওয়া’ খবর হতেই চরম বিপদ বুঝে,
‘কেষ্ট কোথা!কেষ্ট কোথা!’সাহেব মরেন খুঁজে!

”কেষ্টর গাড়ি গেছে নাকি এ পথ দিয়ে বাছা ?
জনে জনে প্রশ্ন করেই খুলে যায় তাঁর কাছা!

খবর দিলে অকালে প্রাণ হারাতে হয় পাছে,
কেউ পারেনা খবর দিতে কেষ্ট কোথা আছে।

গোপন কম্ম সারার পরে ষণ্ডা পাণ্ডা নিয়ে,
দিনের শেষে কেষ্ট মেলে তারাপীঠে গিয়ে।

সামনে দিয়ে কেষ্ট হাওয়া হায় রে নজরবন্দি!
‘সন্দ’ মনে সাহেবের কী হয়েছিলো সন্ধি ?

বিষ্ণুপদ বিশ্বাস

কবি ও সাহিত্যিক -বর্ধমান,ভারত

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.