Take a fresh look at your lifestyle.

শেষ রাত্রির শীত – ১

253

 

আজকের সময় যেখানে পেরাসাইকোলজি একটা বড় মাপের অভিজ্ঞতা নিয়ে এসেছে, সেখানে আমার এই ভূতের গল্প অনেকের কাছে উপহাস মনে হতে পারে|

মনোত্তাকদীর কাছে ভূত বলে কিছু নেই, তেমনি আবার সাধারণের কাছে ভূত বিশাল ব্যাপার | ভূতের নাম শুনলে এখনো এই সমাজের লোকেরা ঈশ্বরের নাম গুনতে শুরু করে দেয় | যাই হোক এই নিয়ে প্রচুর সিনেমা এবং গল্প আছে |এবার আমার গল্পে আসা যাক|

২০১৪ সালের ২৫ ডিসেম্বর গুরগাঁও সেজে উঠেছে ক্রিসমাসে, বড় বড় এপার্টমেন্ট গুলি আলোর ঝর্ণাতে আকাশের বুকে হরেক রঙের রামধনু লিখে যাচ্ছে |অফিস পাড়া গুলি আলোর রশ্নিতে কম্পিউটারে টাইপ করে যাচ্ছে বড়দিনের নতুন স্বাদের কেক খাবার লোভ|রাতি বাড়তে ঝা চকচকে শহর সুরার ফ্লোরে নাচতে শুরু করেছে | নৈশ ক্লাবে সুরার মজা সবে শুরু হয়েছে,ফ্লোরে নিকিতা, সুনীল,নিধী, সুরাজ,অরিজিৎ,মেরি আর জোয়া নাচা-নাচি করছে | দূরে আমি আর মইন শিমলা ঘুরতে যাবার পরিকল্পনা করছি | এমন সময় নিকিতা আমায় ডাক দিয়ে কি বলতে চায় কে জানে? দেখলাম নিকিতার চোখে এক ভয়ের ছাপ | সে কি আবার সেই রোগের স্বীকার হলো?

নিকিতার সাথে আমার আলাপ আমাদের কলেজের একটি ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামে |আমি আর নিকিতা এক ইয়ারে পাশ করি| অরিজিৎ, সুনীল আর বাকিরা মুম্বই শহরে পড়তো | তারপর সামাজিক ওয়েবসাইটে আমাদের বন্ধুত্বটা ক্রমশ দৃঢ় হতে থাকে | এখন ঘটনা চক্রে আমরা সবাই একটি প্রজেক্ট কাজ করছি দিল্লীতে থেকে |

রাত্রি ক্রমশ বাড়তে থাকে ততো নৈশ ক্লাবের পরিবেশ পরিবর্তন হতে শুরু হয় | তখন ঠিক রাত্রি ২টা বাজে দেখলাম নিকিতার জ্ঞান আসতে আসতে সজাক হতে থাকলো | কিন্তু ওর কন্ঠ কেমন ভীত আর ঠোট সমানে বিড়বিড় করছে |এখনো পর্যন্ত জানিনা ঠিক কি হয়েছে?

শিমলার পথের উদ্দেশ্য আমাদের যাত্রা শুরু হলো| সবার মনে সে কী উৎফুল্ল, এই ঠান্ডায় জিপে করে যাত্রা|রাত্রির আকাশ আর এই শীতল বাতাস আমাদের গাড়ির সাথে আমাদের কে ধরার জন্য তাল মিলিয়ে ছুটে আসছে|কিন্তু নিকিতা আনন্দে এখনো ভাগ নিতে পারলোনা | মেয়েটা তবে কি সেই আবার ওই রোগের প্রকোপে বশ হলো?নিকিতা শর্মা ছিলো টেকনো কলেজের ছাত্রী,ওর বাবা ছিলেন কলকাতা পুলিশসের শহীদ ইন্সপেক্টর আর মা প্রাইভেট অফিসে কর্মরত মহিলা|নিকিতা যখন মাধ্যমিক দেবে তখন এক কেসের ব্যাপারে ওর বাবা কে বিহার যেতে হয়েছিলো আর ফিরেছিলেন মর্গের গাড়িতে | সেই থেকে মেয়েটা…
এমন সময় পিছন থেকে কে জানো আমায় ডাকলো আর আমার ভাবনা গুলি কেমন হারিয়ে গেলো |

 

 

রাজদীপ মজুমদার – কবি ও সাহিত্যিক( কলিকাতা) 

Leave A Reply

Your email address will not be published.