Take a fresh look at your lifestyle.

ক্যান্সার পর্ব -ছাব্বিশ

305

গত পর্ব শেষ করেছিলাম লিভার ক্যান্সারের কারণ হিসেব লিভারে চর্বি জমা একটি বিপদজনক কারণ হিসেবে জানিয়ে। আজ অন্যান্য কারণগুলি নিয়ে কিছু আলোচনা করব। এসব কারণের মধ্যেঃ
অ্যালার্জি: লিভার ভালো থাকলে তা এমন সব অ্যান্টিবডি তৈরি করে যেগুলো অ্যালার্জেন বা অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী উপাদানগুলোকে আক্রমণ করে ধ্বংস করে। কিন্তু লিভারের কার্যক্ষমতা কমে গেলে দেহ ওই অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী উপাদানগুলোকে জমা করতে থাকে। এর প্রতিক্রিয়ায় আবার দেহ হিস্টামিন উৎপাদন করতে থাকে যা অ্যালার্জি সৃষ্টিকারক উপাদানগুলো দূর করতে কাজ করে। কিন্তু অতিরিক্ত হিস্টামিন উৎপাদন হলে আবার চুলকানি, ঝিমুনি এবং মাথা ব্যথা হতে পারে।
শরীরে আলোস্যভাব: দেহে টক্সিন জমা হলে তা মাংসপেশির টিস্যুর বিপাকীয় প্রক্রিয়ায় বাধার সৃষ্টি করে। যা থেকে আবার ব্যাথা এবং শারীরিক অলসতা সৃষ্টি হতে পারে। ক্লান্তি থেকে মেজাজ খিটখিটে হওয়া, মানসিক অবসাদ এবং ক্ষোভের বিস্ফোরণের মতো সমস্যাও তৈরি হতে পারে। এটি লিভার ভালো না থাকার শীর্ষ লক্ষণগুলোর একটি । দেহে অতি উচ্চ মাত্রায় টক্সিন বা বিষ জমা হওয়ারও একটি লক্ষণ এটি।
অতিরিক্ত ঘাম বের হওয়া: বেশি বেশি কাজ করার কারণে লিভারের কার্যক্ষমতা কমে যায় এবং সেটি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তখন লিভার দেহের অন্যান্য অঙ্গেও তাপ ছড়িয়ে দেয় এবং অতিরিক্ত ঘাম বের করার মাধ্যমে লিভার নিজেকে ঠাণ্ডা করে।
ব্রণ: লিভারে জমা হওয়া টক্সিন দেহে হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট করতে পারে। যা থেকে ত্বকে ব্রণ সৃষ্টি হতে পারে। কার্যক্ষমতা হারানো লিভারের কারণে সৃষ্ট ত্বকের এই সমস্যা ততক্ষণ পর্যন্ত যাবে না যতক্ষণ না পুনরায় লিভারের কার্যক্ষমতার উন্নতি ঘটানো হবে।
দুর্গন্ধযুক্ত নিঃশ্বাস: মুখের স্বাস্থ্য ভালো থাকার পরেও যদি কারো নিঃশ্বাসের সঙ্গে দুর্গন্ধ বের হয় তাহলে বুঝতে হবে যে তার লিভারের কোনো সমস্যা আছে। লিভারের স্বাস্থ্য ভালো না থাকার একটি লক্ষণ এটি।
হেপাটাটিসঃ হেপাটাইটিস আক্রান্ত শিশুদের লক্ষণগোলো প্রায় একই রকমের। পেটে ব্যথা, বমি বমি ভাব, খাওয়া দাওয়ায় অনীহা, দুর্বলতা, জ্বর জ্বর, হাত পা চুলকানী, ইত্যাদি। এছড়া পরবর্তি সময়ে পানি জমে পেট ফুলে যাওয়া, তাছাড়া শিশু অজ্ঞান হয়ে যাওয়া ইত্যাদি।
পূর্বেই বলেছি লিভারের বিষয়টি খুব দীর্ঘ তাই আগামী পর্বেও থাকছে এ বিষয়ের অরো বেশ কিছু জানার চেষ্টা। ততক্ষণে সময় করে আজকের পর্বটি পড়ুন এবং অন্যকে পড়তে উৎসাহিত করুন। লেখাটি শেয়ার করুন। সবাই ভালো থাকুন এবং মহান সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করুন। নিজেকে সুস্থ রাখতে সতর্ক থাকুন ।

 

রওশন চৌধুরী- সহ সম্পাদিকা চেতনা বিডি ডটকম।     

Leave A Reply

Your email address will not be published.