Take a fresh look at your lifestyle.

ক্যান্সার পর্ব- তিন

380

গত পর্বের শেষ কথা ছিল মানবিক ও মানসিক শান্তির পরিবেশের সম্পর্ক দিয়ে সুস্থভাবে বেঁচে থাকাটাই প্রথম এবং প্রধান অধিকার তারপর বাকী সব।
এক্ষেত্রে আমি অবশ্য সৌভাগ্যের দাবিদার। কেবল মাত্র দু’ একটি পরিবেশ এবং কিছু মানবতা ও বিবেক বর্জিত জীব ছাড়া সর্বত্র অত্যন্ত মানবিক আচরন ও ভালোবাসা স্নেহ মমতা পেয়েছি। বিশেষ করে আমার রক্তের আত্মীয়, কর্মস্থলের সবাই, বন্ধুমহল সহ সর্বস্তরের মানুষের কাছে যা পেয়েছি তার কৃতজ্ঞতা বলে শেষ হবে না। আজ পর্যন্ত তাদের কমল ভালোবাসা আমাকে জীবনের প্রতি আস্থাশীল করছে। আমি তাদের সর্বাঙ্গীন সাফল্য, শান্তিপূর্ণ ও নিরাপদ দীর্ঘায়ু কামনা করছি।
কিন্তু আমার এ লিখার উদ্দেশ্য কেবল আমার জন্যে নয়। আমার জানা অজানা, পরিচিত, অপরিচিত এবং আমার প্রিয় আপনজন এবং প্রিয় বন্ধু বান্ধব আল্লাহ্ না করুন যদি কেউ এমন নিঠুর ব্যাধিতে আক্রান্ত থাকেন বা এর থেকে মুক্তি লাভ করে বেঁচে আছেন সে যতই সুস্থ থাকুন না কেন আমাদের মধ্যে যাদেরকে আল্লাহ্ রব্বুল আল আমীন এ পর্যন্ত এমন কষ্টে ফেলেন নি তাঁরা সকলে যেন একটু কোমল, একটু মোলায়েম মনের পরিচয় দেন, আমাদের মতো যারা মৃত্যুর আলিঙ্গন থেকে কিছু দিনের জন্যে ফিরে এসেছি এবং আপনাদের সাথে বসবাস করছি । হয়তবা আমাদের কোন কোন আচরনে আপনারা বিরোক্তবোধ করেন অথবা আমরা বিরোক্ত করে থাকি এ ব্যাপারটা আপনারা বিরক্তির ছাঁপটা না দেখিয়ে একটু সহজভাবে নিয়ে নেবেন। এমন একটা মানবিক মনের পরিচয় দিতে পারাটা কিন্তু একজন মানুষের মহত্ববোধের প্রকাশ।
এসব রোগী কিংবা রোগমুক্ত মানুষগুলো সুস্থ থাকাকালীন সময়ের চেয়ে এখন একটু বেশী কথা বলতে চায়, কারো একটু সঙ্গ চায়, একটু মানসিক শান্তনার জন্য কারো পবিত্র চিন্তা কিংবা মন মানসিকতা সম্পন্ন কোন একজন মানুষকে বন্ধু হিসেবে পেতে চায়। সেজন হতে পারে মহিলা কিংবা পুরুষ । যদি কেউ এমন মনের অধিকারী থাকেন তবে বিশ্বাসের স্থানে থেকে তাকে একটু সময় দিতে পারেন, দুটি কথা বলতে পারেন। একটু সাহস দিতে পারেন, এমন কি তার মনে বিশ্বাস তৈরির চেষ্টা করতে পারেন যে, আল্লাহ তাঁর পছন্দের মানুষকে পরীক্ষার জন্যে পৃথিবীতে একটু কষ্ট দিয়ে থাকেন। এক সময় সব ঠিক হয়ে যাবে। আল্লাহ সহায় আছেন এবং আমি/আমরা তোমার পাশে আছি । এমন কাজগুলো করতে কিন্তু আপনার আর্থিক কিংবা শারীরিক অথবা সামাজিক কোনরকম অপচয় হচ্ছে না। বরঞ্চ আপনার বা আপনাদের এহেন আচরনে একজন মৃত্যু পথযাত্রী কিংবা এর থেকে সাময়িক পরিত্রানপ্রাপ্ত একজন মানুষ মানসিক সান্তনা পেয়ে আপনার কাছে কৃতজ্ঞ থাকবে এবং সৃষ্টিকর্তার কাছে তাঁর হৃদয় আপনাকে দোয়া দেবে। আর এসব মানুষের দোয়া খুব কবুল হয়। এটা আমার ব্যক্তিগতভাবে পরীক্ষিত। এইটুকু হলো আমাদের আপনজন সহ পারিপার্শিক অবস্থানের সকলের প্রতি আমার অনুরোধ।

 

রওশন চৌধুরী – সহ সম্পাদক চেতনা বিডি ডটকম।

Leave A Reply

Your email address will not be published.