Take a fresh look at your lifestyle.

ক্যান্সার পর্ব ৩১

250
হাড়ের ক্যান্সার (Bone Cancer) 
গত পর্ব শেষ করেছিলাম হাড্ডির ক্যান্সারটি কিভাবে নির্ণয় করা যায় তার উপায় দিয়ে। আজ এর বাকি অংশ এবং এর চিকিৎসা সম্পর্কে একটু জানার চেষ্টা করবোঃ
এক্স-রেঃ হাড়ের টিউমারটির অবস্থান, আকার এবং আকার প্রদর্শন করতে পারে। এক্স-রে মাধ্যমে তা প্রদর্শিত করা যেতে পারে । তবে এ ব্যাপারে ডাক্তার হাড় স্ক্যান, সিটি (বা সিএটি) স্ক্যান, একটি এমআরআই, বা একটি এনজিওগ্রামের মতো বিশেষ ইমেজিং পরীক্ষার পরামর্শ দিতে পারেন। তবে ক্যান্সার রয়েছে কিনা তা নির্ধারণের জন্য একটি বায়োপসি – হাড়ের টিউমার থেকে টিস্যুগুলির একটি নমুনা অপসারণ করা প্রয়োজন। বায়পসি একটি সুই বায়োপসি বা ইনসিশনাল বায়োপসি করতে পারে। মেটাস্ট্যাটিক হাড়ের ক্যান্সার (ক্যান্সার যা শরীরের অন্য অংশে গঠিত হয়েছিল এবং পরে হাড়গুলিতে ছড়িয়ে পড়ে) প্রায়শই একই রকম চেহারা এবং লক্ষণগুলি প্রাথমিক হাড়ের ক্যান্সারের মতো হয়। একটি বায়োপসি শরীরে ক্যান্সার শুরু হয়েছিল তা নির্ধারণ করতে পারে। অভিজ্ঞ এবং দক্ষ সার্জন দ্বারা বায়োপসিটি করা খুব জরুরি। একটি অনুপযুক্তভাবে সম্পাদিত বায়োপসি চিকিত্সার বিষয়গুলিকে পরে অবহেলিত করতে পারে।
কিভাবে চিকিৎসা করা হয়?ঃ হাড়ের ক্যান্সারের চিকিৎসা একমাত্র সার্জারী, রেডিয়েশন এবং কেমোথেরাপি।
সার্জারিঃ সার্জারি হচ্ছে হাড়ের ক্যান্সারের প্রায়শই প্রাথমিক চিকিত্সা। হাড়ের টিউমারগুলি অপসারণের জন্য অপারেশন করার সময়, সার্জনরা আশেপাশের কিছু হাড় এবং পেশীগুলি সরিয়ে ফেলেন তারা নিশ্চিত করেন যে যতটা সম্ভব ক্যান্সারযুক্ত টিস্যু অপসারিত হয়েছে। আমেরিকার চিকিৎসকদের মতে, ক্যান্সার যদি কোনও বাহুতে বা কোনও পাতে থাকে তবে ঐ অঙ্গটি সংরক্ষণের এবং এর কার্যকারিতা বজায় রাখার চেষ্টা করে এমন ব্যবস্থা নেয়া দরকার। বেশিরভাগ হাড়ের ক্যান্সার সার্জারিতে এটি করতে সক্ষম হয়ে থাকেন বলেও জানান তারা।
কেমোথেরাপি (Chemotherapy for Bone Cancer) ঃ সাধারণতঃ কোনও টিউমার অপসারণের জন্য অস্ত্রোপচারের পরে শরীরে যে কোনও ক্যান্সার কোষ শরীরের কোথাও যদি থেকে থাকে তাকে একমাত্র কেমোথেরাপির মাধ্যমে আপসারন করার চেষ্টা করা হয়। যাকে(Adjuvant chemotherapy বলা হয়)। কোণ কোন দক্ষ সার্জন এটি অপসারণের আগেই টিউমারের আকার হ্রাস করার জন্য কখনও কখনও সার্জারির আগে কেমোথেরাপি যাকে (neoadjuvant chemotherapy বলা হয়) প্রদান করেন। এই পদ্ধতিটি আমেরিকার মেমোরিয়াল স্লোয়ান কেটারিংয়ে অগ্রণী ভূমিকায় গ্রহন করা হয়েছে।
রেডিয়েশন (Radiation Therapy for Bone Cancer)ঃ কখনও কখনও টিউমার ধ্বংস করতে বা সঙ্কুচিত করতে অস্ত্রোপচারের পাশাপাশি বা তার পরিবর্তে বিকিরণ থেরাপি দেয়া হয়। অস্ত্রোপচারের পরে অবশিষ্ট কোনও ক্যান্সার কোষকে মেরে ফেলতে বা সার্জিকভাবে অপসারণ করা যায় না এমন টিউমারগুলির চিকিত্সার জন্যও মাঝে মাঝে কেমোথেরাপির সাথে মিশ্রিত করতে Radiation Therapy ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যদি ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়ে এবং হাড়ের বিরুদ্ধে চলা বা হস্তান্তরিত হয়, তবে ব্যথাসহ লক্ষণগুলি থেকে মুক্তির উপায় হিসেবে রেডিয়েশন থেরাপি ব্যবহারের পরামর্শও দেয়া হয়। চিকিত্সকরা কোন ধরণের থেরাপি কোন রোগীর জন্য সবচেয়ে ভাল তা বিবেচনা করে রোগীর সাথে আলাপের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকেন। আজ এপর্যন্ত আগামীতে এর বাকী অংশ নিয়ে জানার আশা রাখি। এই পর্বটি পড়ুন এবং শেয়ার করুন যাতে অন্যরাও পড়তে পারেন। সবাই ভালো থাকুন সৃষ্টিকর্তার কাছে এই প্রার্থনা জানিয়ে। আল্লাহ্‌ হাফেজ।
(চলবে)
রওশন চৌধুরী, সহ সম্পাদিকা, চেতনায় বিডি ডটকম

Leave A Reply

Your email address will not be published.